সুরের রসে বাতাস ভাসে

সুরের রসে বাতাস ভাসে
আকাশ ধরে টানে
বাঁশি কি বাঁশির খবর জানে।
আপন বুকের দহন জ্বালা
সইতে পারে না যে
সকাল-সাঁঝে রোদন ভরা
করুণ বাঁশি বাজে
রাঙা পরাণ উজার করে
জগতটারে হানে।
বাঁশরিয়ার প্রাণের শোণিত
রক্ত-শহর তোলে
রাঙিয়ে যায় চরাচরে
লাল গোলাপের ফুলে
কি মিনতি প্রকাশ করে
আকুল সমীরণে।
সুখী মানুষ শয্যাতলে
মগ্ন প্রমোদ রসে
কচিত বাঁশির রোদন-ধ্বনি
প্রাণের তলে তলে পশে
তারা কি বুঝতে পারে
আমার এই বাঁশির স্বরের মানে।

নীলক্ষেত
১৯.০১. ৭৮