নিমাই কেন হলে তুই সন্ন্যাসী

নিমাই কেন হলে তুই সন্ন্যাসী
মাকে তুমি পাশরিয়া
হইয়াছ রে বৈদেশি।।

ভারতীর সঙ্গ পাইয়া
মাকে কেন গেলে ছাড়িয়া
রে কুলের বধূ বিষ্ণুপ্রিয়া
তারে করলে উদাসী।।

কী সুখে তুই মা ছাড়িলে
শ্ৰীঅঙ্গে কৌপিন পরিলে রে
তিলক মালা অঙ্গে দিলে
হইলে রে পরদেশি।।

তুলসী মালা দিয়া গলে
বসত করো নিমের তলে রে
এই ছিল মায়ের কপালে
মন্দ বলে পড়শি।।

কে দিলো এই কুমন্ত্রণা
মনে আর বুঝ মানে না রে
দুর্বিন শাহর কপাল ভালো না
বিধাতায় করল দোষী।।

(সন্ন্যাসতত্ত্ব)