ঠেকছি ভবে গরিব হইয়া

ঠেকছি ভবে গরিব হইয়া
আমার ভাঙা বাড়ি
লোভ লালসায় হইলাম গাধা
টানতে আছি ভবের গাড়ি।।

ঘর বান্ধিলাম বিয়া করলাম
পরার ধনে হাত বাড়াইলাম
করলাম কাড়াকাড়ি
কয়দিন পরে দাঁত লড়িল
পেকে গেল চুল আর দাড়ি।।

আপ্ত-জ্ঞাতি যারা ছিল
দেখতে দেখতে সবই গেল
আমায় একা ছাড়ি
আমিও একদিন চলে যাব
ঘরের স্ত্রী হবে লাড়ি।।

এসেছিলাম-লাভ করিতে
পুঞ্জি গেল পরার হাতে
করে তাড়াতাড়ি
দুর্বিন শাহ কয় কী ধন লইয়া
পরপারে দিব পাড়ি।।

(আত্মকথা)