অপরাজিতা

পরাজিত তুই সকল ফুলের কাছে,
তবু কেন তাের অ-পরাজিতা নাম?
গন্ধ কি তাের বিন্দুমাত্র আছে—
বর্ণ, সেও তাে নয় নয়নাভিরাম!

ক্ষুদ্র শেফালি, তারাে মধু-সৌরভ,
ক্ষুদ্র অতসী, তারাে কাঞ্চন-ভাতি;
গরবিনি, তাের কিসে তবে গৌরব—
রূপগুণহীন বিড়ম্বনার খ্যাতি!

কালাে আঁখিপুটে শিশির-অশ্রু ঝরে—
ফুল কহে, মাের কিছু নাই—কিছু নাই;
তােমরা যে নামে ডাকিয়াছ দয়া করে,
আমি,শুধু ভাই, তাই— আমি শুধু তাই!

ফুলসজ্জায় লজ্জায় যাই নাকো,
পুষ্পমালায় নাহিকো আমার স্থান;
প্রিয়-উপহারে ভুলেও কি মােরে ডাক?
বিবাহ-বাসরে থাকি আমি ম্রিয়মাণ

মাের ঠাঁই শুধু দেবের চরণতলে,
পূজা—শুধু পূজা জীবনের মাের ব্রত;
তিনিও কি মােৱে ফিরাবেন আঁখিজলে—
অন্তরযামী, তিনিও তােমারি মতাে।