জীবন ভালোবেসে

দ্যাখা হ’লো অনেক রক্ত রৌদ্র কোলাহল;
চারিদিকে অধোমুখে মানুষেরা শব বহন করে;
আজকে শতাব্দীতে মৃত্যু প্রথম কথা, তবু
এ-সব মৃত অবশেষে ঘুমের ভিতরে
জুড়োয় গিয়ে দূর পৃথিবীর ঘাস শিশিরে জলে;
এরা নদী সূর্য প্রেমের দিন ফুরিয়ে ফেলে
মাটি, তোমার নিজের মনের কথা হয়ে ধীরে
তোমার সাথে ঘুরছে কেমন অজ্ঞান শরীরে।

এখানে খড়ে ভ’রে আছে দু-চার মাইল কামিনী ধানের ক্ষেত;
ঘুঘুর ডাকে আদিম শান্তি আরো অনেকক্ষণ;
মিছরি-গুঁড়ির মতন বৃষ্টি রোদুরে উজ্জ্বল:
আকাশে চাতক: ওর একরাশি আত্মীয়স্বজন;
এ-সব ছাড়া ঐ মৃতদের ফুরিয়ে গেছে সবি;
সময়ের এই কার্যকলাপ গভীর মনে হয়,
জীবন ভালোবেসে হৃদয় বুঝেছে অনুপম
মূল্য দিয়ে আসছে চুপে মৃত্যুর সময়।

[আনন্দবাজার পত্রিকা। শারদীয় ১৩৬৩]