বঁধু আমি ছিনু বুঝি বৃন্দাবনের

বঁধু আমি ছিনু বুঝি বৃন্দাবনের রাধিকার আঁখি-জলে।
বাদল সাঁঝের যুঁই ফুল হয়ে আসিয়াছি ধরাতলে।।

তাই যেমনি মিলন সাধ ওঠে জেগে
তুমি লুকাও হে চাঁদ বিরহের মেঘে,
আমি পূবালী পবনে ঝরে যাই বনে দলগুলি যেই খোলে।।

বঁধু এই বুঝি হায় নিয়তির লেখা মিলন আমার নহে —
ক্ষনিকের শুভ-দৃষ্টি লভিয়া কাঁদিব পরম বিরহে।
বুঝি মিলন আমার নহে —
আসিব না আমি মাধবী নিশীথে
বরষায় শুধু আসিব ঝুরিতে,
অসহায় ধারা-স্রোতে ভেসে যাব, মালা হব নাকো গলে।।