কে পরালো মুণ্ডমালা আমার শ্যামা-মায়ের গলে

কে পরালো মুণ্ডমালা
আমার শ্যামা-মায়ের গলে।
সহস্র-দল জীবন-কমল
দোলে রে যার চরণ-তলে॥

কে বলে মোর মা-কে কালো,
মায়ের হাসি দিনের আলো,
মায়ের আমার গায়ের জ্যোতি
গগন-পবন-জলে-স্থলে॥

শিবের বুকে চরণ যাঁহার
কেশব যাঁরে পায় না ধ্যানে,
শব নিয়ে সে রয় শ্মশানে
কে জানে কোন অভিমানে।

সৃষ্টিরে মা রয় আবরি,
সেই মা নাকি দিগম্বরী?
তাঁরে অসুরে কয় ভয়ঙ্করী
ভক্ত তাঁয় অভয়া বলে॥

[ভূপালী-দাদরা]