পূবালী পবনে বাঁশি বাজে রহি’ রহি’

পূবালী পবনে বাঁশি বাজে রহি’ রহি’।
ভবনের বধূরে ডাকে বনের বিরহী।।

রতন হিন্দোলা নীপ ডালে বাঁধা’,
দোলে দোলে, বলে যেন ‘রাধা রাধা’,
দুরু দুরু বুকে বাজে গুরু গুরু দেয়া
কেয়া ফুল আনে সোম-সুগন্ধ বহি’।।

চোখে মাখি সজল কাজলের ছলনা
অভিসারিকার সাজে সাজে গোপ-ললনা।

বৃষ্টির টিপ ফেলে ননদীর নয়নে
কদম-কুঞ্জে চলে গোপন চরণে,
মিলন বিরহ শোক তার বুকে
কাঁদে ‘রাধা-শ্যাম রাধা-শ্যাম’ কহি।।