সোনার মেয়ে! সোনার মেয়ে

সোনার মেয়ে! সোনার মেয়ে!
তোমার রূপের মায়ায় আমার
নয়ন- ভুবন গেল ছেয়ে’॥

ঝরে তোমার রূপের ধারা—
চন্দ্র জাগে তন্দ্রাহারা,
আকাশ-ভরা হাজার তারা
তোমার মুখে আছে চেয়ে’॥

কোন্ গ্রহ-লোক ব্যথায় ভ’রে
কোন্ অমরা শূন্য ক’রে
(ওগো) রাখলে চরণ ধরার ‘পরে
রঙ্-সায়রের রঙে নেয়ে।

শিল্পী আঁকে তোমার ছবি
তোমারি গান গাহে কবি
নিশীথিনী হারিয়ে রবি
চাঁদ হাতে পায় তোমায় পেয়ে॥