তোমার হাতের সোনার রাখি

তোমার হাতের সোনার রাখি
আমার হাতে পরালে।
আমার বিফল বনের কুসুম
তোমার পায়ে ঝরালে॥

খুঁজেছি তোমায় তারার চোখে
কত সে গ্রহে কত সে লোকে,
আজ কি তৃষিত মরুর আকাশ
বাদল-মেঘে ভরালে॥

দূর অভিমানের স্মৃতি
কাঁদায় কেন আজি গো।
মিলন-বাঁশী সহসা ওঠে
ভৈরবীতে বাজি গো॥

হেনেছ হেলা দিয়েছ ব্যথা
মনে কেন আজ পড়ে সে কথা
মরণ-বেলায় কেন এ গলায়
মালার মতন জড়ালে॥

[ভৈরবী-কার্ফা]