ভাঙার গান

কারার ঐ লৌহ-কপাট
ভেঙ্গে ফেল্, কর্ রে লোপাট
রক্ত-জমাট
শিকল-পূজার পাষাণ-বেদী!
ওরে ও-তরুণ ঈশান!
বাজা তোর প্রলয়-বিষাণ!
ধ্বংস-নিশান
উঠুক প্রাচী-র প্রাচীর ভেদি’॥

গাজনের বাজ্না বাজা!
কে মালিক? কে সে রাজা?
কে দেয় সাজা
মুক্ত-স্বাধীন সত্য কে রে?
হা হা হা পায় যে হাসি,
ভগবান প’রবে ফাঁসি?
সর্বনাশী—
শিখায় এ হীন্ তথ্য কে রে?
ওরে ও-পাগ্লা ভোলা,
দেরে দে প্রলয়-দোলা
গারদগুলা
জোর্সে ধ’রে হ্যাঁচকা টানে।
মার্ হাঁক্ হায়দরী হাঁক্
কাঁধে নে দুন্দুভি ঢাক্
ডাক্ ওরে ডাক্
মৃত্যুকে ডাক জীবন-পানে॥

নাচে ঐ কাল-বোশেখী,
কাটাবি কাল ব’সে কি?
দে রে দেখি
ভীম কারার ঐ ভিত্তি নাড়ি’।
লাথি মার, ভাঙ্রে তালা!
যত সব বন্দী-শালায়—
আগুন জ্বালা,
আগুন জ্বালা, ফেল্ উপাড়ি’॥

সিনেমাঃ ‘চট্রগ্রাম অস্ত্রাগার লুন্ঠন’