রাত পোহালে পাখি বলে

রাত পোহালে পাখি বলে
দে রে খাই দে রে খাই।
আমি গুরু কার্য মাথায় রেখে
কি করি আর কোথায় যাই।।

এমন পাখি কে বা পোষে
খেতে চায় সাগর শুষে
তারে কি দিয়ে জোগাই।।

আমার বুদ্ধি গেল সাধও গেল
নাম হল রে পেটুক সাঁই।।

আমি বলি ও আত্মারাম
মুখেতে লও আল্লার নাম।
তুমি যাতে মুক্তি পাও।।

আরে কথায় কেমন হয়না রতন
খাবো খাবো খাবো রব সবাই।।

আমি হলাম লাল পড়া
পাখি আমার বেয়াড়া।
সবর বুঝি নাই
তার সবর বুঝি নাই।।

ফকির লালন বলে পেট ভরিলে
কিসের আর গুরু-গোঁসাই।।