খাটি সত্য

আমার প্রিয়ার নয়ন নহেকে
হরিণীর চেয়ে ভালাে,
আঁখিতারা তার কালাে বটে, নয়
ভ্রমরের চেয়ে কালাে!
চঞ্চল আঁখি ঈঙ্গিতে কভু
খঞ্জন নাহি নাচে,
বেণীর তুলনা শুনিয়া নাগিনী
লাজে না লুকায়ে বাঁচে।
মুখখানি দেখে চাঁদ বলে কারাে
ভুলেও হয় না ভুল,
দন্তরুচির কান্তি লভিতে
ফোটে না কুন্দ ফুল!
মধুর অধরে মধু আছে, তবু
ভ্রমর নাহিকো ভুলে,
কালাে মেঘ ভেবে আকাশের তারা
ফুটিতে আসে না চুলে!
পাগল নহিলে বলিবে না কেউ—
কথায় অমিয়া ঝরে,
হাসির সহিত তুলনা হেরিয়া
জোছনা হাসিয়া মরে!
চারু চরণের নূপুর শিখিতে
হংসী চাহে না ফিরে,
চরণ ফেলিতে কোনাে বনফুল
ফোটে না চরণ ঘিরে!
চরণ-কমল শুনিয়া কমল
রাগে রাঙা হয়ে ফুটে,
তনুলতা সাথে তুলনা শুনিয়া
লতিকা শিহরি উঠে!
রং যে তাহার কত সুন্দর
শতবার তাহা জানি—
তাই বলে সে যে ‘দুধে-আলতায়’,
—সে কথা কেমনে মানি?
মিথ্যা মায়ায় সাজাইতে তারে
নাই কোনাে প্রয়ােজন,
সকলের চেয়ে সত্য সে মাের
যাহারে সঁপেছি মন।