বালক বালিকারা

এরা কি দুবেলা খেতে পায়!
ইশকুলে যায়! এই বালক বালিকারা!
এরা নেড়ি কুকুরের আধখাওয়া হাড় কেড়ে খায়
এরা জমে যাওয়া শীতের রাত্তিরে ধুলােকাদায় ঘুমায়
এরা জন্মায়, এই বালক বালিকারা।

যদি বা জন্মায়
বছর বছর মরে খরায় বন্যায়
কেউ কেউ বাঁচে অপেক্ষায়- এই বালক বালিকারা
এদের জীবন ঘােরে উল্টো চাকায়।

মাঝে মাঝে সন্ধ্যায়
বাবুদের বাড়ির সীমানায়
এরা সুখের দুখের গান গায়
দু’আনা চারআনা চায়।

বাবুরা যায়,
এদের ভাগ্যকে দোষ দিয়ে সিঁড়ি ভেঙে ওপরতলায়।