হে মদিনার নাইয়া

হে মদিনার নাইয়া!
ভব-নদীর তুফান ভারী
কর মোরে পার।
তোমার দয়ায় তরে গেল লাখো গুনাহ্গার
করো করো পার॥

পারের কড়ি নাই হে আমার হয়নি নামাজ রোজা
আমি কূলে এসে বসে আছি নিয়ে পাপের বোঝা
‘পার কর য়্যা রসুল’ বলে কাঁদি জারেজার॥

তোমার নাম গেয়েছি শুধু কেঁদে সুবহশাম
আমি তরিবার মোর নাই তো পুঁজি বিনা তোমার নাম।
আমি হাজারো বার দরিয়াতে ডুবে যদি মরি
ছাড়ব না মোর পারের আশা তোমার চরণ-তরি,
দেখো সবার শেষে পার যেন হয় এই খিদমতগার॥

(বনগীতি গ্রন্থের দ্বিতীয় খণ্ড হতে সংগৃহীত)