কবিতা

বাংলা কবিতার আর্কাইভ যেখানে দেশাত্মবোধক, প্রকৃতি, প্রেম, রম্য ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের কবিতা পাওয়া যাবে।

সত্যবদ্ধ অভিমান

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, প্রেম

এই হাত ছুঁয়েছে নীরার মুখ আমি কি এ হাতে কোনো পাপ করতে পারি? শেষ বিকেলের সেই ঝুল বারান্দায় তার মুখে পড়েছিল দুর্দান্ত সাহসী এক আলো যেন এক টেলিগ্রাম, মুহূর্তে উন্মুক্ত করে নীরার সুষমা চোখে ও ভুরুতে মেশা হাসি, নাকি অভ্রবিন্দু?...বিস্তারিত

মনে মনে

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, রূপক

যে আমায় চোখ রাঙিয়ে এইমাত্র চলে গেল গটগটিয়ে সে আমায় দিয়ে গেল একটুকরো সুখ। শরীরে নতুন করে রক্ত চলাচল, টের পাই ইন্দ্ৰিয় সুতীক্ষ্ণ হয়ে ওঠে মৃদু হেসে মনে মনে আমি তার নাম কেটে দিই! সে আর কোথাও নেই হিম অন্ধকার...বিস্তারিত

দেখা

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, প্রেম

- ভালো আছো? - দেখো মেঘ, বৃষ্টি আসবে। - ভালো আছো? - দেখো ঈশান কোণের কালো, শুনতে পাচ্ছো ঝড়? - ভালো আছো? - এই মাত্র চমকে উঠলো ধপধপে বিদ্যুৎ। - ভালো আছো? - তুমি প্রকৃতিকে দেখো - তুমি প্রকৃতি আড়াল...বিস্তারিত

যে-যাই বলুক

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, প্রেম

যে-যাই বলুক, আমার ভীষণ বেঁচে থাকতে ইচ্ছে করে সন্ধেবেলায় নীলচে আলোয় পথ ঘুরে যায় মোমিনপুরে আমি তখন কোন্ প্রবাসে, বেঁচে থাকার থেকেও দূরে ঘুরে মরবো! নরম হাত ঠোঁট ছোঁবে না, চোখ ছোঁবে না? যে-যাই বলুক, আমার ভীষণ বেঁচে থাকতে ইচ্ছে...বিস্তারিত

খণ্ডকাব্য

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, প্রেম

- কে যায়? - এই মাত্র চলে গেল বিহ্বল রজনী - অদূরে কিসের শব্দ? - রৌদ্র থেকে ফিরে আসে ছায়া - জলস্রোতা ফিরে গেছে যেখানে যাবার কথা ছিল? - চাঁদ ভুলে গেছে তাকে - বাতাসে কিসের গন্ধ? - আমি এক...বিস্তারিত

নিসর্গের পাশাপাশি

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, রূপক

সিংহাসন থেকে ধীর পদক্ষেপে নেমে আসে ছারপোকা লেলিহান আগুন প্ৰদক্ষিণ করে সে রক্ত সমুদ্রের সামনে বিষণ্ণভাবে চেয়ে থাকে কিছুক্ষণ হালকা হাওয়ার মতন মৃত্যুকে অনুভব করার আমেজে চোখ বুজে আসে। তখন বারুদ রঙের মেঘের আড়ালে ঢুকে গেছে সূর্য একটা কাক লুঠেরার...বিস্তারিত

অন্ধকারে নদী

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, রূপক

নদী, তুমি অন্ধকার। এ যে রাত্রি এ যে স্রোত বিপুল বহতা তরঙ্গের চকিত ঝাপট, ঘূর্ণি, মাংসল স্বাস্থ্যের মতো জল সেই রাত্রিকায় নদী- শীত, ঘন কৃষ্ণপক্ষ; বাঁ হাত চেনে না ডান হাত চোখ চেয়ে আছে, তবুও দেখে না এত অন্ধকার যেন...বিস্তারিত

দুপুর থেকে রাত্রি

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, রূপক

তিনজন তেজী ছেলে দুপুরে ছুটছিল সাইকেলে বুক খোলা শার্ট, তারা রোদ্দুরে অদৃশ্য হয়ে যেতেই শ্লথ মানুষের ভিড় বেনোজল হয়ে ঘিরে আসে যে-যার পথের থেকে খুঁটে নেয় কাচ ও পালক নারী হয় ক্বচিৎ রমণী, ধুলোভরা হাওয়া ঘুরে যায় আমিও প্ৰস্থান করি...বিস্তারিত

অলীক বাদুড়

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, রূপক

অলীক বাদুড়, তুই কোন্ স্পর্ধা ভরে উড়ে এলি? গাছের শিখরে ছিল হিরণ্য চাঁদের ম্লান বৃষ্টি ভেজা মুখ বাতাস দিয়েছে সুখ হেমন্ত-কাতর পল্লীটিকে সদ্য ঘুম ভেঙে আমি ভোগ করি দুৰ্নিবার স্মৃতির কুহেলি- অলীক বাদুড়, তুই কোন্ স্পর্ধা ভরে উড়ে এলি? কে...বিস্তারিত

দাঁড়াও! কেন?

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, রূপক

অন্ধকারে কে ডেকে উঠলো, দাঁড়াও! অন্ধকার নদীর পাশে তখন নদীর মতন অন্ধকার প্রান্তর- প্ৰান্তরে আমি একা, কে ডেকে উঠলো, দাঁড়াও! বৃক্ষ নেই, হাওয়া নেই, তবু সেই অলৌকিক স্বর শিহরণ তোলে আমি শরীরবাদী বলে ভর্ৎসনা পেয়েছি, আমি অশরীরীকে ভয় করি না,...বিস্তারিত