কার নিকুঞ্জে রাত কাটায়ে আস্লে প্রাতে পুষ্প-চোর

কার নিকুঞ্জে রাত কাটায়ে
আস্লে প্রাতে পুষ্প-চোর।
ডাকছে পাখী, ‘বৌ গো জাগো’
আর ঘুমায়ো না, রাত্রি ভোর॥

যুঁই-কুঁড়িরা চোখ মেলে চায়
চুম্কুড়ি দেয় মৌমাছি
শাপলা-বনে চাঁদ ডুবে যায়
ম্লান চোখে হায় চায় চকোর॥

ঘোম্টা ঠেলি’ কয় চামেলী
গোল ক’রো না গুল্-ডাকাত,
ঢুলছে নয়ন, দুলছে গলায়
বেল-টগরের ছিন্ন ডোর॥

গুন্গুনিয়ে মোর আঙিনায়
কোন্ সতীনের গাইছ গুন্
কার মালঞ্চে ফুল ফোটায়ে
হুল ফোটালে বক্ষে মোর॥