যুদ্ধ

অস্ত্রের বিরুদ্ধে গান

  • জয় গোস্বামী
  • কবিতা, যুদ্ধ

অস্ত্র ফ্যালো, অস্ত্র রাখা পায়ে আমি এখন হাজার হাতে পায়ে এগিয়ে আসি, উঠে দাঁড়াই হাত নাড়িয়ে বুলেট তাড়াই গানের বর্ম আজ পরেছি গায়ে গান তো জানি একটা দুটো আঁকড়ে ধরে সে-খড়কুটো রক্ত মুছি শুধু গানের গায়ে মাথায় কত শকুন বা...বিস্তারিত

মৃত্যু থমকে গেছে ছন্দের সামনে

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, যুদ্ধ

হামবুর্গ শহরের অদুরে অটোবানে সংঘর্ষ হল দুটি গাড়ির একটি গাড়ি থেকে ছিটকে, লণ্ডভণ্ড হয়ে সাত হাত দূরে গিয়ে পড়ল উড়িষ্যার একটি নারী গাঢ় নীল রঙের শাড়িতে রক্ত, প্রতিমার মতন ভুরু-আঁকা, স্বর্ণময় মুখখানি ড়ুবে গেছে ঘাসে আকাশ তখন বর্ষণ করছে অন্ধকার,...বিস্তারিত

আর যুদ্ধ নয়

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, যুদ্ধ

'কার দিকে তুমি গুলি ছুঁড়ছো হে, এখানে সবাই মানুষ!' তুমি কে, তুমি কি গ্রহান্তরের দল-ছুট? তোমার কখনো ছিল না কি শৈশব? তুমি কি কখনো দেখোনি মাটিতে ঘুমন্ত কোনো শিশু? জানলার ধারে দাঁড়ানো, একলা, শুন্যদৃষ্টি নারী? কার দিকে তুমি গুলি ছুঁড়ছো...বিস্তারিত

চে গুয়েভারার প্রতি

  • সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
  • কবিতা, যুদ্ধ

চে, তোমার মৃত্যু আমাকে অপরাধী করে দেয় আমার ঠোঁট শুকনো হয়ে আসে, বুকের ভেতরটা ফাঁকা আত্মায় অভিশ্রান্ত বৃষ্টি পতনের শব্দ শৈশব থেকে বিষণ্ন দীর্ঘশ্বাস চে, তোমার মৃত্যু আমাকে অপরাধী করে দেয়- বোলিভিয়ার জঙ্গলে নীল প্যান্টালুন পরা তোমার ছিন্নভিন্ন শরীর তোমার...বিস্তারিত

চীন: ১৯৩৭-৩৮

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, যুদ্ধ

এখন গম্ভীর সূর্য চ'লে যায় মৃতবৎসা হস্তিনী'র মতো ভীম পাহাড়ের অই পারে মাছির ডানার মতো ক্ষীণ কলরোল পিছে রেখে (জনমাংসহীন হিমে পৃথিবীর তরে) জমি উপড়ায়ে ফেলে কুয়াশায় মিশে গেছে চাষা প্রাচীন লাঙ্গল তার মৃত্তিকার তরঙ্গের এক কোণে আছে চুরি হয়ে...বিস্তারিত

মৃত চীন-সৈনিক

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, যুদ্ধ

সমস্ত শরীর তার জড়ানো রয়েছে ফিট যুদ্ধের শোভায় যেন কেউ ঈশ্বরের চেয়ে কিছু কম গরিমায় তাহার প্রত্যঙ্গে আছে পরিপূর্ণ হয়ে সঞ্চারণ করিলেই উঠিবে সে জেগে- নীল আকাশের নিচে অনন্ত জলের নদী- প্রণয়ের চেয়ে দায়িত্ব বিশিষ্টতর ছিল তার? বিলোল বায়ুর চেয়ে...বিস্তারিত

প্রত্যাবর্তন

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, যুদ্ধ

চীনের সম্রাট যেন আমাকে হুকুম দিল বায়ুর ভিতর থেকে এসে "এখন এমন ছবি এঁকে দাও আমার দেয়ালে যাতে আমি গাঢ় নক্ষত্রের থেকে এই মূর্খ পৃথিবীতে পুনরায় নেমে এসে- এই প্রত্যাবর্তনের মূলে তোমাদের সকলের অগোচর ক্লান্ত অভিশাপ রয়ে গেছে- তবুও নির্দেশ...বিস্তারিত

সে কোন শতক এই জানি না

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, যুদ্ধ

সে কোন শতক এই জানি না কি- শতকের জীব? তবু এক গুণপনা ছড়ায়ে রয়েছে এই দেশে জাপানির বারুদের পথে ফলিয়াছে ভোর, চকিতে জেনেছে ভুল ক'রে আজ এই পৃথিবীতে এসে মনে হয় হৃদয়েরে চেয়ে আনে নিসর্গের ভোর এসে গেলে নগরীর আট-দশ...বিস্তারিত

১৯১৪-১৯৪১

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, যুদ্ধ

দুইটি বৃহৎ কুরুক্ষেত্র এই পৃথিবীর 'পরে আধো-অসমাপ্ত হয়ে আরেক যুদ্ধের কোলে মানুষের মনে মিশে আছে আজ এই বিকেলের আলোর ভিতরে একটি কৃষক তার হৃদয়ের বিমর্ষ স্পন্দনে দাঁড়ায়েছে মহাসূর্যাস্তের বিষম বলয়ের মুখোমুখি শববাহকের কাঁধে এক জন বুর্জোয়া'র মৃত্যু আসে যায় একটি...বিস্তারিত

কামাল পাশা

  • কাজী নজরুল ইসলাম
  • কবিতা, যুদ্ধ

[তখন শরৎ-সন্ধ্যা। আস্মানের আঙিনা তখন কার্বালা ময়দানের মতো খুনখারাবির রঙে রঙিন। সেদিনকার মহা-আহবে গ্রীক-সৈন্য সম্পূর্ণরূপে বিধ্বস্ত হইহা গিয়াছে। তাহাদের অধিকাংশ সৈন্যই রণস্থলে হত অবস্থায় পড়িয়া রহিয়াছে। বাকি সব প্রাণপণে পৃষ্ঠ প্রদর্শন করিতেছে। তুরস্কের জাতীয় সৈন্যদলের কাণ্ডারী বিশ্বত্রাস মহাবাহু কামাল-পাশা মহাহর্ষে...বিস্তারিত