দেশাত্মবোধক

না রাজা, না রাজ্য

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

কেউ নয়, না রাজা না রাজ্য, শুধু রাজপথ চিনেছে আমাকে। আমি কোনো রাজাকে চিনি না। আমি কোনো রাজাকে দেখি নি। আমার চৈতন্যে কোনো চিরস্থায়ী রাজ্যভূমি নেই, রাজচিত্র নেই, শুধু উপলব্ধি আছে এক পরিবর্তনশীল, অসহায় অস্থির মাতৃভূমির- যে শুধু খণ্ডিত হয়ে...বিস্তারিত

ভারতবর্ষ

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

জাগিয়াছে শুভ্ৰ ঊষা- পুণ্য বেদবতী প্রাচীমঞ্চে, ভারতের উদয়গগনে। কোন্ এক আদি মহাতপস্যার ক্ষণে বাজিয়াছে আমাদের মঙ্গল আরতি! মধূমান্ সূর্য সোম ঢালিয়াছে জ্যোতি আমাদের নদী গিরি নির্ঝর কাননে, অৰ্পিয়াছে শান্তি স্বস্তি নিখিলের মনে আমাদের কাব্য কলা- মোদের ভারতী! মৃত্যুর সাগর মন্থি...বিস্তারিত

রামদাস

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

যুগসন্ধিতে ভারত যখন সহসা তিমিরময়- বীর সন্ন্যাসী গাহিয়া উঠিলে নব আলোকের জয়! অনাগত এক আশার স্বপ্নে নিমিষে উঠিলে জাগি, মাতিয়া উঠিলে দশের লাগিয়া, দেশ-দেবতার লাগি। ওহে সাগ্নিক, প্রাণের অনলে জ্বালালে বিশাল শিখা, যত মোহ মায়া ভ্রান্তি বেদনা নিরাশার কুহেলিকা স্পর্শে...বিস্তারিত

অনুভব

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

আমরা আশ্চর্য পথে যাব না কি আর? কোথাও দেখার মতো র'য়ে গেছে কিছু। আত্রেয়ীর থেকে বঙ্গসাগরের সীমানা বিপুল; ভোরবেলা পশ্চিমের থেকে যাত্রা ক'রে সায়াহ্নের বাংলার বদ্বীপের মতো উপকূল; লবণসমুদ্র তাকে যেমন উজ্জ্বল করে- সূর্য যা সব রৌদ্র দিয়ে সৃষ্টি করে-...বিস্তারিত

সমুদ্রের পারে এই

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

সমুদ্রের পারে এই নক্ষত্রের তলে যদি আজ আমি শেষ হয়ে যাই,- ঘুমাবার আগে তবু মনে র'বে পৃথিবীতে কোথায় আমার ছিলো স্থল; আমি এখানের নই,- এই তারা, আর এই বিদেশের সমুদ্রের জল,- তোমাদের কাছে এসে এইখানে যদি আজ অন্তরের সকল হারাই;...বিস্তারিত

পৃথিবীর যেই পারে থাকি

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

পৃথিবীর যেই পারে থাকি আমি এই কথা আমার তবুও মনে রবে: সেই এক সমুদ্রের ধারে আমি তোমারে এসেছি ফেলে,- আমি এক-জনা এক দিন বিদেশের এই আকাশের তলে আমি ক্লান্ত হ'য়ে আর রহিব না; এক দিন আমার সে-আকাশের পরিচিত নক্ষত্রের তলে...বিস্তারিত

বুনোহাঁস

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

পৃথিবীর সব-চেয়ে বিস্ময়ের পাশে চুপে থামি আমি বুনোহাঁসদের দেখিয়াছি- আমি। সোনার মেঘের পরে একরাশ মশার মতন তারপর কোথায় নিবিড় বন তাহাদের নিয়ে গেছে মাঠ বিল শরের ভিতর দূর থেকে তাহাদের স্বর শুনিয়াছি কখন গভীর রাতে বেগুনি বনের পার আলো হয়ে...বিস্তারিত

হে শঙ্খমালা

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

যে-দিন আমি পৃথিবীর থেকে চ'লে যাব- হে শঙ্খমালা- অপরিসীম নক্ষত্র তুমি বিছিয়ে রেখো আকাশে, আকাশের অন্ধকার সমতলতা ঘিরে যুগান্তের লুপ্ত মানবীদের মতো কয়েকটি নির্জন নক্ষত্র- এর চেয়ে গভীর জিনিস কী আর থাকতে পারে! কী আর থাকতে পারে, শঙ্খমালা? আর আমার...বিস্তারিত

বিকেলের আলোয়

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

বিকেলের আলোয় ঘুম ভাঙল তাকিয়ে দেখলাম খেজুর-গাছে সোনালি ফলের বোঝার ওপর কোকিল ব'সে রয়েছে কৃষ্ণচূড়া'র পাপড়ি ঝ'রে পড়ছে হলুদ বোলতা, শালিখ, কাক আকাশের ফাঁকে-ফাঁকে মিশে যাচ্ছে সব স্তিমিত রোদের সমুদ্রের ভিতর থেকে ভেসে আসছে সাদা মেঘ,- পাহাড়ের মতো বাতাস- কৃষ্ণচূড়া'র...বিস্তারিত

বাংলার কৃষাণ

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, দেশাত্মবোধক

কয়েকটি বাংলা'র কৃষাণকে এইখানে প্রান্তরের পারে ধরা গেল;- ধীরে তারা চলেছিল দীর্ঘ ছন্দে পৃথিবীর অবিচল পথে গোরু'র-গাড়ির মতো চলেছিল লেখাজোখা মুছে ফেলে কুয়াশার নির্নিমেষতায় যেন কোথাও যা অবশেষে সমুত্তীর্ণ হতে জানে, আহা- ভূতের মতন আমি চমকিত করিলাম তাহাদের গোধূলির স্তব্ধতায়;-...বিস্তারিত