বিবিধ

পঁচিশ

  • জয় গোস্বামী
  • কবিতা, বিবিধ

শুধু বাকি থেকে গেছে তোমার মায়ের গান শোনা... আজ যাব- কাল যাব- হপ্তার পরের হপ্তা- যাব বৎসর পিছনে রেখে- পৃথিবী ও সূর্যের ঘূর্ণন আগুন ছিটকোনো চাকতি, শত শত চক্র পার করে এসে দেখব বসে আছো, উনুনে দু'হাত, জ্বলছে চিরন্তন যজ্ঞকাষ্ঠ,...বিস্তারিত

তোমার না-বেরোনো কবিতার বই

  • জয় গোস্বামী
  • কবিতা, বিবিধ

[স্বাতীকে অভিজিৎ যদি চিঠি লিখত: সাম্যব্রত জোয়ারদার] তোমার না-বেরোনো বইয়ের নাম আমার দুই কাঁধের ওপর দাঁড়িয়ে গেছে গাছের দুটি শাখা হয়ে... আর দুদিক থেকে তাদের ঠোঁটে ধরে উড়তে শুরু করে দিয়েছে একজন ফিঙে একজন দোয়েল বাধ্য হয়ে তাদের সঙ্গে উড়তে...বিস্তারিত

অকাল-সন্ধ্যা

  • নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী
  • কবিতা, বিবিধ

ব্যাসবাক্য মিথ্যা নয়। পরবর্তী কবিরাও মৌসলপর্বের অন্ত্য ঘটনার বর্ণনায় অসত্যের আশ্রয় নেননি। তাঁরা যথাসাধ্য ব্যাসের পদাঙ্ক অনুসরণ করেই যা-কিছু বলবার বলেছেন। ব্যাখ্যা বহুবিধ, কিন্তু তথ্য এক। সত্যি সেই সংকটের মুহূর্তে একটিও দিব্যাস্ত্র আমার স্মৃতির সড়কে, অন্ধকারে ভাসিত হয়নি। ব্যাসবাক্য মিথ্যা...বিস্তারিত

টেল-এনডার

  • নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী
  • কবিতা, বিবিধ

বাপু হে, হাত খুলে এখন খেলে যাও। যেটা ছাড়বার, ছাড়ো। যেটা মারবার, মারো। নিজের মধ্যে সেঁদিয়ে গিয়ে অনেকক্ষণ তো চুপচাপ দাঁড়িয়ে রইলে, এবারে বেরিয়ে এসো, আর অত ভয়ডর কোরো না। মনে রেখো, তুমি টেল-এনডার। তোমার কাছে কারও কোনো প্রত্যাশা নেই।...বিস্তারিত

পার্ক রোডে ঘুম

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, বিবিধ

মানুষের মতো আর আজকাল ঘুমোতে পারি না। একটি নিজস্ব ঘুমরীতি আবিষ্কার করেছি সম্প্রতি। একদিন একটি কালো কোকিলের বাসায় ঘুমিয়েছিলাম, তাঁরই কাছে শেখা এই ঘুমরীতি। গাছের পাতার ফাঁকে পূর্ণিমার চাঁদের মতন শুয়ে থাকা, ঝুলে থাকা। ভারী সুন্দর, সহজ কিন্তু ভীষণ গভীর!...বিস্তারিত

প্রশ্নাবলী

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, বিবিধ

কী ক'রে এমন তীক্ষ্ম বানালে আঁখি, কী ক'রে এমন সাজালে সুতনু, শিখা? যেদিকে ফেরাও সেদিকে পথিবী পোড়ে। সোনার কাঁকন যখন যেখানে রাখো। সেখানে শিহরে, ঝংকার ওঠে সুরে। সঠাম সবুজ মরাল বাঁশের গ্রীবা কঠিন হাতের কোমল পরশে জাগে। চুম্বন ছাড়া কখনোও...বিস্তারিত

করুণাকে

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, বিবিধ

ভাগ্যিস, টুকু ব'লে তোমারও অন্য একটা ডাকনাম ছিল। মসজিদে আজান শুনে এখনো সন্ধ্যায় তুমি যেই ঘোমটা দিয়ে নতুন বধূর মতো দ্রুত হেঁটে যাও, আমি তক্ষকের ডাকের আড়ালে ব'সে তোমাকে শুনিয়ে শুনিয়ে প্রাণভ'রে ডাকি টুকু...টুকু...টুকু...। আমার প্রেমের স্বর লুক্কায়িত, তক্ষকের চিৎকারের...বিস্তারিত

রবিবারের গান

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, বিবিধ

আজ রোববার, আজ হলিডে আজ মেনড্রাক্স শুধু মেনড্রাক্স আহা মেনড্রাক্স। আজ মাইসেলফ আজ হু-হু হু, আজ হোহ হো আজ হাহ হা আজ লাল্লা। আজ চিয়ার আপ, আজ রোববার, আজ হলিডে, আজ হরতাল আজ চাকা বন্ধ। আজ হরতাল, আজ হাহ হা,...বিস্তারিত

কলকাতা: ১৯৭১

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, বিবিধ

খটাং খটাং খট, খটাং খটাং খট, যেন মধ্যরাতে পালাচ্ছে বিদুৎ- ডাকাতের দল, ট্রাম-গাড়ি। খটাং খটাং দুঃখ, খটাং খটাং দীর্ঘশ্বাস যেন মধ্যরাতে পালাচ্ছে বিনাশ, প্রিয়তমা, নারী, কলকাতা, ঘরবাড়ি।বিস্তারিত

রাজদ্রোহী

  • নির্মলেন্দু গুণ
  • কবিতা, বিবিধ

আমার রক্তের মধ্যে লোহিত কণার মতো মিশে আছে গণিকার ঠোঁটের লিপস্টিক, ধবল শখের দাঁত খুলে খুলে সাজানো চুম্বন। কোন ব্যাধি আমাকে ছোঁবে না। আমি এই শতাব্দীর গণঘৃণ্য রােগের সন্তান কোনাে পাপ আমাকে ছোঁবে না। আমার হাতের মধ্যে স্বেচ্ছায় খুলে দেয়া...বিস্তারিত