রূপক

তোরা বল গো সকলে গৌরচান পাব কই গেলে

  • রাধারমন দত্ত
  • বাউল সংগীত, রূপক

তোরা বল গো সকলে গৌরচান পাব কই গেলে ওগো এক দিবসে গিয়াছিলাম সুরধনীর কিনারে এগো বিজুলী চটকের মত গৌরচান দেখা দিয়া লুকাইলে৷৷ ভাইবে রাধারমণ বলে শুন গো সকলে ওগো পাইতাম যদি গৌরচান আমি কইতাম কথা নিরলে৷৷ [গৌরপদ]

এইখানে সূর্যের

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, রূপক

এইখানে সূর্যের ততদূর উজ্জ্বলতা নেই। মানুষ অনেক দিন পৃথিবীতে আছে। 'মানুষের প্রয়াণের পথে অন্ধকার ক্রমেই আলোর মতো হ'তে চায়'— ওরা বলে, ওরা আজো এই কথা ভাবে। একদিন সৃষ্টি পরিধি ঘিরে কেমন আশ্চর্য এক আভা দেখা গিয়েছিলো; মাদালীন দেখেছিলো—আরো কেউ-কেউ; অম্বাপালী...

অদ্ভুত আঁধার এক

  • জীবনানন্দ দাশ
  • কবিতা, রূপক

অদ্ভুত আঁধার এক এসেছে এ-পৃথিবীতে আজ, যারা অন্ধ সবচেয়ে বেশি আজ চোখে দ্যাখে তারা; যাদের হৃদয়ে কোনো প্রেম নেই— প্রীতি নেই— করুণার আলোড়ন নেই পৃথিবী অচল আজ তাদের সুপরামর্শ ছাড়া। যাদের গভীর আস্থা আছে আজো মানুষের প্রতি এখনো যাদের কাছে...

হিন্দোল-বিলাস

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

প্রাণে মনে হিল্লোল বনে বনে হিন্দোল মেঘে মৃদঙের বোল মৃদু-মন্তর; শ্রাবণেরি ছন্দে কদমেরি গন্ধে তায় তুই চঞ্চল! চির-সুন্দর! নিশাসে কি সৌরভ! কালো চুলে মেঘ সব! পশ্‌লায় পশ্‌লায় রূপ ধর্‌ গো; কালে চোখে বিদ্যুৎ, কোনোখানে নেই খুঁৎ, অদ্ভুত! অদ্ভূত! তুই স্বর্গ!...

ঘুম্তি নদী

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

ঘুরে ঘুরে ঘুম্তী চলে, ঠুম্‌রী তালে ঢেউ তোলে! বেল্-চামেলির চুম্কি চুলে, ফুলেল হাওয়ায় চোখ্ ঢোলে! কুড়্ক্ পাখীর উলুর রবে ঘুম ভাঙে তার, দিন কাটে, ক্ষীর্রি-দোয়েল-শালিক-শামা-বুল্বুলিদের কন্সাটে্! শণের ফুলে ছিটিয়ে সোনা শরৎ তারে সাজিয়ে যায়, ভিণ্ডি-ফুলের কনক জবা তার নিকষে যাচিয়ে...

জাফ্‌রানিস্থান

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

যে দেশেতে চড়ুই-পাখীর চাইতে প্রচুর বুল্বুলি, যেথায় করে কাকলি কাক নীবস নিজের বোল্ ভুলি', বারোমাসেই সরল ঘাসে সবুজ যেথা ঘরের চাল, চালে চালে ফুলেব ফসল চুম্কী-চমক নিত্যকাল, ভূর্জ্জপাতার ঠোঙায় যেথা আঙুর বেচে সুন্দরী, হাজার হাজার হৈমবতী বেড়ায় যেথা রূপ ধরি',...

আলোর পাথার

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

কে বাজালে মাঝ্-দিনে আজ প্রহর-রাতের সুর সাহানা! শঙ্খ-গৌর মেঘের মেলায় শঙ্খ-চিলের মিলায় ডানা; জর্দ্দা-কাঠির গম্বুজেতে ময়না জেগে স্বপ্ন দেখে, শিউলি-ফুলি হাওয়ায় ভেসে ঘাসের ফুলে ফড়িং ঠেকে! গাছের গোড়া গোল্টি ক'রে নিকিয়ে ছায়া দ্যায় নিভৃতে, সেই চাতালে রাখাল আসে একটুকু গা...

কয়াধু

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

[দিতি ও কশ্যপের পুত্র অসুর সম্রাট্ হিরণ্য-কশিপুর পত্নী কয়াধু! ইনি জস্তাসুরের কন্যা ও মহিষাসুরের ভগিনী। ইহার চারি পুত্র—প্রহ্লাদ, সংহলাদ, হলাদ ও অমুহলাদ।] কার তরে এই শয্যা দাসী, রচিস্ আনন্দে? হাতীর দাঁতের পালঙ্কে মোর দে রে আগুন দে। পুত্র যাহার বন্দীশালায়...

মল্লিকুমারী

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

[ইনি মথুরার রাজকন্যা; মতান্তরে মিথিলার। মহাবীর, পার্শ্বনাথ, শীতলনাথ, শাস্তিনাথ, ঋষভদেব প্রভৃতির দ্যায় ইনি একজন জৈন তীর্থঙ্কর। চব্বিশজন তীর্থঙ্করের মধ্যে নারী-তীর্থঙ্কর এই একজন মাত্র। মল্লিকুমারীর আবির্ভাব কাল বুদ্ধদেবের অনেক পূর্ব্বে।] সকল প্রাণীতে সমান দৃষ্টি,— কারো প্রতি মোর বৈর নাহি; অজানিতে যদি...

একটি চামেলীর প্রতি

  • সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
  • কবিতা, রূপক

চামেলি তুই বল্,— অধরে তোর কোন রূপসীর রূপের পরিমল! কোন্ রজনীর কালো কেশে লুকিয়েছিলি তারার বেশে, কখন খ'সে পড়লি এসে ধূলির ধরাতল! কোন্ সে পরী গলার হারে রেখেছিল কাল তোমারে, কোন প্রমদার সুধার ভারে টুপ্ টুপে তোর দল! কোন্ তরুণীর...